ইবিতে “মোহন জলের জালে” কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন

39

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সী মুর্তজা আলী রচিত প্রথম কাব্যগ্রন্থ “মোহন জলের জালে” মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরে লোকপ্রশাসন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জুলফিকার হোসেনের সভাপতিত্বে লোকপ্রশাসন বিভাগীয় রুমে এক অড়াম্বর অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে এ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, কবিতা মানব সমাজের প্রথম শিল্পকর্ম। ক্রিস্টপূর্ব ৭ হাজার বছর আগে সুমেরিয় অঞ্চলে প্রথম স্টোনের ট্যাবলেটের উপরে মাটি খনন করে পাওয়া গেছে মানব চিন্তায় কাব্যিক ও সাহিত্যিক বহিঃপ্রকাশ যা ঘটেছিল কাব্যের মাধ্যমেই। এর আগে প্রবন্ধ কিংবা উপন্যাসের কোন সুযোগ নেই।

সুতরাং আদি কথা হচ্ছে কবিতা। সেই কবিতা কিন্তু নানাভাবে, নানা ব্যঞ্জনায় এবং নানা মাত্রিকতায় বাংলাদেশসহ সারা পৃথিবীতে বিকশিত হয়েছে। ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, এই গ্রন্থের মাধ্যমে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা সাহিত্যের অঙ্গনে একজন নতুন কবি জন্ম নিলেন। তাঁর কবিতা ভাবোদ্রেকারী ও সুলিখিত। নিয়মিত কর্মব্যস্ততার পরেও এমনই একটি সাহসী পদক্ষেপ গ্রহণ করায় লেখক মুর্তাজাকে জানাই আন্তরিক ধন্যবাদ। তিনি বলেন, উৎকৃষ্টতম শব্দের উৎকৃষ্টতম বিন্যাস হলো কবিতা। “মোহন জলের জালে” এই শিরোনামের মধ্যে একটি অনুপ্রায়স রয়েছে। কবিতা হয়ে উঠার বৈশিষ্ট্য এই শিরোনামেই কিছুটা বিস্তৃত হয়েছে। পরবর্তীতে মুন্সী মুর্তাজা আলী’র লেখা আরও সুচিন্তিত কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হবে এই প্রত্যাশা করেন ড. রাশিদসকারী।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, মুন্সী মুর্তাজা আলী অত্যন্ত সহজ সরল ভাষায় কবিতা লিখেছেন। তাঁর কাব্য গ্রন্থ হৃদয়গ্রাহী। আশারাখি তাঁর লেখা প্রথম এ কাব্যগ্রন্থটি পাঠকদের নিকট অত্যন্ত জনপ্রিয়তা লাভ করবে।

অনুষ্ঠানে লেখক মুন্সী মুর্তাজা আলী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি তাঁর গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করায় গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, বইটি এবারের জাতীয় অমর একুশে গ্রন্থমেলায় ‘পরিবার প্রকাশনীর’ ২১৩ নম্বর স্টল থেকে সংগ্রহ করা যাবে।

-মোয়াজ্জেম আদনান, ইবি