চীনের ওপর শুল্ক আরোপের সময়সীমা বাড়াবেন ট্রাম্প!

18

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, চীনের ওপর নতুন শুল্ক বসানোর সময়সীমা কিছুটা বাড়াতে পারেন তিনি, যদি চীন বাণিজ্য নিয়ে আলোচনায় উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি আনতে পারে। চীনা ও মার্কিন কর্মকর্তারা চলতি সপ্তাহে বাণিজ্যযুদ্ধ বন্ধ করার লক্ষ্যে উচ্চপর্যায়ের আলোচনায় অংশ নেবেন। ওই আলোচনায় একটি ফলপ্রসূ চুক্তিতে যাওয়ার আশা প্রকাশ করছে দুই দেশ। আজ বুধবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

আগামী ১ মার্চ শেষ হতে যাচ্ছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার ৯০ দিনের শুল্ক বিরতি চুক্তি। ১ মার্চের মধ্যে দুই পক্ষ কোনো সমাধানে পৌঁছতে ব্যর্থ হলে আবারও চীনা পণ্যের ওপর শুল্ক বাড়াবে যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে এর আগে যুক্তরাষ্ট্র জানায় কোনোভাবেই সময়সীমা বাড়ানো হবে না।

একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে দুই দেশের মধ্যে কর্মকর্তা পর্যায়ে আলোচনা চলতি সপ্তাহে শুরু হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভ মিউচিন ও চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট লিও হের বৈঠক হওয়ার কথা। দুই দলই আগামী ১ মার্চের আগে কোনো একটি সমাধানে পৌঁছাতে তোড়জোড় শুরু করেছে।

এর আগে চীন থেকে ২৫০ বিলিয়ন ডলার আমদানিতে শুল্ক বসিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে ১১০ বিলিয়ন ডলার পণ্য আমদানি শুল্ক বসিয়েছে চীন। গত বছরের ডিসেম্বরে আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসে অনুষ্ঠিত জি–২০ সম্মেলনে ৯০ দিনের শুল্ক বিরতি চুক্তিতে আসে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। মূলত, বাণিজ্যযুদ্ধ নিরসনে আলোচনা চালানোর উদ্দেশ্যেই এ চুক্তিতে আসে দুই পক্ষ। এই সময়ের মধ্যে দুই দেশ কোনো চুক্তিতে না পৌঁছালে ২০০ বিলিয়ন ডলার অর্থমূল্যের চীনা পণ্যের ওপর শুল্কহার ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করবে যুক্তরাষ্ট্র।