জোড়া সেঞ্চুরির পরও জয় পেলো না পাকিস্তান

54

মাত্র ২ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপে পুড়েছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে জোড়া সেঞ্চুরি করেন পাকিস্তানের অভিষিক্ত ওপেনার আবিদ আলি এবং উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান। তবু ম্যাচ শেষে চওড়া হাসিটা ম্যাক্সওয়েলের মুখেই।

থাকবেই না কেন? জোড়া সেঞ্চুরি করেও যে দলকে জেতাতে পারেননি আবিদ ও রিজওয়ান। ওয়ানডে ইতিহাসে মাত্র চতুর্থ দল হিসেবে রান তাড়া করতে নেমে জোড়া সেঞ্চুরি করেও ম্যাচ হারার বিব্রতকর রেকর্ডে নাম তুলেছে পাকিস্তান।

প্রথম তিন ম্যাচ জিতে আগেই সিরিজ নিশ্চিত করেছিল অস্ট্রেলিয়া। শুক্রবার চতুর্থ ওয়ানডেতে ম্যাক্সওয়েলের ৯৮ রানের ইনিংসে ভর করে ২৭৭ রান করে তারা। জবাবে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৭১ রানের বেশি করতে পারেনি পাকিস্তান। ৬ রানের জয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ৪-০ ব্যবধানে লিড নিল অস্ট্রেলিয়া।

রান তাড়া করে শূন্য রানেই ভাঙে পাকিস্তানের উদ্বোধনী জুটি। দ্বিতীয় উইকেটে ৭৪ রান যোগ করেন আবিদ আলি এবং হারিস সোহাইল। বাঁহাতি হারিস সাজঘরে ফেরেন ২৫ রান করে। এরপরই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি নিজেদের হাতে নিয়ে নেন আবিদ ও রিজওয়ান।

দুজন মিলে তৃতীয় উইকেটে গড়েন ১৪৪ রানের জুটি। ক্যারিয়ারের প্রথম ওয়ানডেতেই সেঞ্চুরি তুলে নেন আবিদ। রিজওয়ান করেন চলতি সিরিজ ও ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। ৪১ ওভার শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ছিল ২ উইকেটে ২১৮ রান। ৮ উইকেট রেখে ৫৪ বলে প্রয়োজন ছিল ৬০ রান।

তখনই বিপর্যয়ের চূড়ান্ত রূপ দেখে পাকিস্তান। ৪২তম ওভারের প্রথম বলে ফেরেন ১১৯ বলে ১১২ রান করা আবিদ। এরপর আর কেউই ব্যাট হাতে দাঁড়াতে পারেননি। রিজওয়ানের একার লড়াই থামে ইনিংসের শেষ ওভারে। একই সঙ্গে নিশ্চিত হয় পাকিস্তানের পরাজয়। ১০২ বলে ১০৪ রান করেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে বল হাতে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন নাথান কাউল্টার নাইল, শেষ ওভারে ২ উইকেট নেন মার্কাস হ্যারিস। এছাড়া কেন রিচার্ডসন, নাথান লিয়ন এবং অ্যাডাম জাম্পা নেন ১টি করে উইকেট।

এর আগে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে নিজের দুর্দান্ত ফর্ম বজায় রাখেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। আগের ম্যাচে দলের বিপদের মুখে খেলেছিলেন ৭১ রানের এক ইনিংস। এবার আরও একবার দলকে বিপদ থেকে বাঁচালেন এই অলরাউন্ডার। তবে দলকে বাঁচালেও নিজে ঠিকই আক্ষেপ নিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন।

মাত্র ২ রানের জন্য যে সেঞ্চুরিটা পাওয়া হলো না। সেটাও আবার মেরে আউট হলে কথা ছিল, ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান পড়েছেন দুর্ভাগ্যজনক রানআউটের কবলে। দুবাইয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া তোলে ৭ উইকেটে ২৭৭ রান।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার দুজনই রান পেয়েছেন। উসমান খাজা করেন ৬২ রান। ৩৯ করেন অ্যারন ফিঞ্চ। কিন্তু মাঝে দ্রুত কয়েকটি উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে গিয়েছিল সফরকারিরা। শন মার্শ (৫), পিটার হ্যান্ডসকম্ব (৭) আর মার্কাস স্টয়নিস (২) আউট হয়ে যান অল্প রানেই। ১৪০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া।

সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন ম্যাক্সওয়েল। ষষ্ঠ উইকেটে অ্যালেক্স কারেকে নিয়ে গড়েন ১৩৪ রানের বড় জুটি। ইনিংসের শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে এসে রানআউটের ফাঁদে পড়েন ম্যাক্সওয়েল। ৮২ বলে ৯ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় তিনি তখন ৯৮ রানে। শেষ বলে আউট হন ৬৭ বলে ৫৫ করা কারে।

পাকিস্তানের পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ হাসনাইন, ইমাদ ওয়াসিম আর ইয়াসির শাহ।