বয়স এখনো ৪০ হয়নি, আমারও বাঁচতে ইচ্ছে করে : পলি সায়ন্তনী

Avatar
নিজাম উদ্দিন, সিনিয়র রিপোর্টার
৫:৩১ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০১৯

বাংলা গানের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ডলি সায়ন্তনী। অডিও এবং সিনেমায় অসংখ্য গান দিয়ে শ্রোতাদের মন জয় করেছেন। তার ভাই বাদশা বুলবুলও দেশের জনপ্রিয় একজন গায়ক। অনেক গান তার শ্রোতাদের মন ছুঁয়ে গেছে।

ডলি সায়ন্তনী ও বাদশাহ বুলবুলের ছোট বোন পলি সায়ন্তনী। তিনিও গান করেন। আছে শ্রোতাপ্রিয় কিছু গান।

তবে অনেক দিন গানে নিয়মিত নন তিনি। খবর নিয়ে জানা গেল মন খারাপের খবর। দুই বছর ধরে মরণব্যাধি ক্যান্সারের সঙ্গে লড়ছেন এই সংগীতশিল্পী। বয়স এখনো ৪০ হয়নি। জীবনের এই মধ্য গগনেই থেমে যেতে চান না তিনি।

ক্যান্সারকে আল্লাহর ইচ্ছে বলেই মানছেন। তবে বেঁচে থাকতে চান তিনি। বেঁচে থাকার আকুতি নিয়ে পাশে চাইছেন সহকর্মীদের চিকিৎসার সহায়তার জন্য। আজ মঙ্গলবার দুপুরে নিজের ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন পলী। সেই স্ট্যাটাসে তিনি ‘শিল্পীদের প্রতি আমার আকুল আহ্বান’ শিরোনামে লিখেছেন, ‘আমি সৌভাগ্যবান। আমার অসুস্থতার উসিলায় আমাদের গানাঙ্গনের মানুষগুলো একত্রিত হতে যাচ্ছে। আমার জীবনে কি হবে জানি না তবে, দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ হবে।

চরম অবহেলিত গান জগতের শিল্পীদের পাশে শিল্পীরা দাঁড়ালে পুরো সংগীতাঙ্গনের আমূল পরিবর্তন আনা সম্ভব হবে। আমি একজন শিল্পী ঘরানার সদস্য হয়ে সব শিল্পীর কাছে আহ্বান জানাচ্ছি আপনারা একত্রিত হোন। আমরা একত্রিত হলে কারো কাছে সহযোগিতার জন্য হাত বাড়ানোর প্রয়োজন হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘দীর্ঘ কয়েক বছর নীরবে ক্যান্সার চিকিৎসা করে যাচ্ছি। প্রতি রাতে ঘুমোতে গেলে মনে হয় এই বুঝি শেষ রাত। হয়তো আর সকাল দেখার সৌভাগ্য নাও হতে পারে। আল্লাহর রহমতে এখনো বেঁচে আছি মানুষের দোয়ায়।

আমিও পুরোপুরি সুস্থ মানুষ ছিলাম আপনাদের মতোই। আমার ক্যান্সার হয়েছে জানার দিন পর্যন্ত আমিও ভেবেছি আমার কখনোই এমন রোগ হবার সম্ভাবনা নাই। নির্মম নিয়তি, আমার অনিরাময়যোগ্য রোগ মরণব্যাধি ক্যান্সার হয়েছে। সবই আল্লাহর ইচ্ছা।

জীবনের ৪০ বছরের ছোঁয়া এখনো লাগেনি। আমারও বাঁচতে ইচ্ছে করে। আমারও ইচ্ছে করে আবারো সবাইকে নিয়ে হৈ হুল্লোড় করে গানে গানে সুন্দর জীবন গড়তে। জানি না আর হবে কি না!!!

তাই আমার সহকর্মী সিনিয়র সমমনা ও জুনিয়র শিল্পীদের বলবো আমার জন্য না হোক, নিজেদের ভবিষ্যতের জন্য হলেও একসাথে এক প্লাটফর্মে ঐক্যবদ্ধ হোন। আপনারা ঐক্যবদ্ধ হলে দেশ পাবে একটি আপন সংগীত ভুবন, শিল্পীরাও আর বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুবরণ করবেন না।’

এদিকে অর্থাভাবে বর্তমানে পলি সায়ন্তনীর চিকিৎসা অনিশ্চয়তার মুখে। তার পরিবারের পক্ষে চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। এরই মধ্যে কেমোথেরাপি ও রেডিওথেরাপি করতে ব্যক্তিগত ভাবে প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে।

কিন্তু শারীরিক অবস্থার উন্নতির জন্য তার প্রয়োজন আরও উন্নত চিকিৎসার। অর্থাভাবে সেই চিকিৎসা হচ্ছে না তার। শিল্পীর চিকিৎসার অর্থ সংগ্রহের জন্য একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে। যারা শিল্পীকে সাহায্য করতে চান তারা- Premier bank, Poly Shayontony, A/C- 12100055524, Uttara branch- এই ঠিকানায় টাকা পাঠাতে পারবেন।

বিকাশ করা যাবে 8801720054267 নাম্বারটিতে।

মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here