Avatar

শয়তানের ভয়ঙ্কর রানী জোলি

49

মানবসেবায় সবসময়ই নিয়োজিত হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। মানুষের পাশে থাকতে তিনি ছুটে চলেন পৃথিবীর এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত। বিশেষ করে শিশু ও নারীদের জন্য জোলির হৃদয় অনেক বেশি কোমল ও ভালোবাসাময়।

কিছুদিন আগে তিনি জাতিসংঘের দূত হিসেবে বাংলাদেশ সফর করে গেলেন মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের দেখতে। সময় কাটিয়েছেন ভাগ্যাহত নারী ও শিশুদের দুঃখ-দুর্দশার কথা শুনে।

সেই জোলি কি না ভয়ঙ্কর এক ডাইনি হয়ে গেছেন? তাকে বলা হচ্ছে শয়তানের রানী! শুনতেই তো কেমন লাগে। কিন্তু কথা মিথ্যে নয়। মুক্তির অপেক্ষায় থাকা নিজের নতুন ছবিতে এমন চরিত্রেই দেখা যাবে তাকে।

রুপকথার গল্পের উপর ভিত্তি করে ২০১৪ সালে মুক্তি দেয়া হয়েছিলো ডিজনি কমিকসের ছবি ‘মেলাফিসেন্ট’৷ ছবিটিতে অনবদ্য অভিনয় করে নজর কেড়ে নিয়েছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি।

রবার্ট স্টোর্মবার্গের পরিচালিত মেলাফিসেন্ট প্রথম পর্বের ছবিতেই আভাস মিলেছিলো ছবিটির সিকুয়্যালের। সেই অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে দীর্ঘ চার বছর পর। আসছে ১৮ অক্টোবর রুপালি পর্দায় মুক্তি দেয়া হবে ‘মেলাফিসেন্ট : ইভিল কুইন’।

এবারের কিস্তিতে দেখা যাবে রাজ্যের পরিধি বাড়াতে রাজমহলের নিকটবর্তী বন উজাড় করতে চেয়েছিলেন রাজা৷ সেখানে বাঁধা হয়ে দাড়ান বনের রানী মেলাফিসেন্ট। যখন কিছুতেই আর বন দখলে নেয়া যাচ্ছিলো না তখনই রাজা রাজপুত্রকে দিয়ে প্রেমের ফাঁদ তৈরি করে ধোকা দেন মেলাফিসেন্টকে।

এতে ভীষন ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন মেলাফিসেন্ট। এবার মেলাফিসেন্টের সেই ধ্বংসাত্মক রুপটাই দেখানো হবে ‘মেলাফিসেন্ট ২’ ছবিটিতে। আর তাই ছবিটির নামকরণ করা হয়েছে ‘মেলাফিসেন্ট : মিসট্রেস অব কুইন’। অনেকেই জোলিকে শয়তানের রানীও বলছেন।

সম্প্রতি প্রকাশ হয়েছে ছবিটির ট্রেলার। সেখানে ভয়ংকর ও ধ্বংসাত্মক ডাইনি রুপে দেখা মিলেছে হলিউড তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলির।

প্রসঙ্গত, মেলাফিসেন্ট প্রথম কিস্তির বক্স অফিস সাফল্য ছিলো আকাশ ছোঁয়া। মাত্র ১৮৫ মিলিয়ন বাজেটের ছবি আয় করেছিলো ৭৬৫ মিলিয়ন ডলার। অ্যাঞ্জেলিনা জোলির ক্যারিয়োরে সবচেয়ে ব্যবসা সফল ছবি এটি।

মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here