Avatar

কোচ বদলাবে বার্সেলোনা?

44

বার্সেলোনার লিগ বহু আগেই জেতা হয়ে গিয়েছিল। ট্রেবল জয়ের স্বপ্নে বিভোর দলটার বাকি ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগ আর কোপা ডেল রে জেতা। কিন্তু সেটি আর জেতা হয়নি। ফলে আগে থেকেই আলোচিত-সমালোচিত কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে। বার্সার কোচ হিসেবে থাকবেন কি না, সে নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। শেষ পর্যন্ত পারবেন থাকতে?

লিওনেল মেসিও এবার পারলেন না। পুরো মৌসুমে কার্যত মেসির কাঁধে চড়ে পার হওয়া বার্সেলোনার জন্য কাল মেসির গোলও যথেষ্ট ছিল না কোপা ডেল রে জিততে। ভ্যালেন্সিয়া যে আগেই দুই গোল দিয়ে বসেছিল! ফরাসি স্ট্রাইকার কেভিন গামেইরো ও স্প্যানিশ স্ট্রাইকার রদ্রিগো মরেনোর গোল দুটিই যথেষ্ট ছিল বার্সেলোনার ‘ডাবল’ জেতার স্বপ্ন ভেঙে দেওয়ার জন্য। কিছুদিন আগেও ‘ট্রেবল’ জেতার স্বপ্ন দেখা বার্সেলোনার কপালে ‘ডাবল’ও জুটল না। এটা তো বার্সার জন্য ব্যর্থতাই। ফলে চাকরি নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়ে গেছেন কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে।

বার্সেলোনার হয়ে দুই মৌসুমে দুটি লিগ জিতলেও কখনোই সমর্থকদের প্রিয়পাত্র হয়ে উঠতে পারেননি ভালভার্দে। ওই যে, এক জিনিস বারবার পেতে থাকলে সে জিনিসের প্রতি আগ্রহ কমে যায়! সেটিই হয়েছে বার্সেলোনার। গত দশ মৌসুমে আটবার লিগ জেতা বার্সা সমর্থকদের জন্য কয়েক মৌসুম ধরে লিগের চেয়েও বেশি দরকারি হয়ে উঠেছে একটা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়। বিশেষত, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা নিয়ে উল্লাস করতে দেখে রীতিমতো হাঁপিয়ে উঠেছে বার্সা সমর্থকেরা। পরপর দুইবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার জন্য সুবিধাজনক অবস্থানে থেকেও দলকে ফাইনালে তুলতে পারেননি ভালভার্দে। এই ব্যর্থতাটাই সবাইকে বেশি পোড়াচ্ছে। গতবার প্রথম লেগে রোমার বিপক্ষে ভালোভাবে এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয় লেগে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে বার্সা। এবার লিভারপুলের সঙ্গেও তাই হয়েছে। ট্রেবল জয়ের স্বপ্ন সেখানেই শেষ। আশা ছিল অন্তত ঘরোয়া ডাবল জেতার। ভ্যালেন্সিয়ার জন্য সেটিও হলো না। প্রশ্ন উঠে গেছে, ভালভার্দে কি আসলেই বার্সার কোচ হিসেবে থাকার যোগ্য?

দলের সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ কিন্তু এর মধ্যেই ভালভার্দের প্রতি নিজের আস্থার কথা জানিয়েছেন। দলের ব্যর্থতার জন্য দোষী খেলোয়াড়েরাই, কোচ নয়, এমনটিই মনে করেন তিনি, ‘এখনো ভালভার্দে আমাদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ। এখনো আমাদের সে-ই কোচ। ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে হারের দায় আমি তাঁকে দিতে চাই না। খেলোয়াড়েরা ভালো খেলেনি। আমার মতে এই মৌসুমটা বেশ ভালোই কেটেছে। লিগ জিতেছি। অর্থাৎ এই মৌসুমকে ব্যর্থ বলা যায় না।’

ম্যাচের আগে মেসির মুখেও শোনা গেছে একই কথা। লিভারপুলের বিপক্ষে হারের দোষ নিজেদের কাঁধেই নিয়েছেন মেসিরা। কোচকে দোষী করতে চাননি।

কিন্তু মেসিদের সমর্থন পেলেও, সমর্থকদের উষ্মা বার্সা বোর্ড বেশ ভালোই বুঝতে পারছে। ফলে ভালভার্দের চাকরি যে একেবারেই নিশ্চিত, সেটি ঠিক হলপ করে বলা যাচ্ছে না। বিশেষ করে সামনের মৌসুম হতে যাচ্ছে কোচ বদলের। মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি, আন্তোনিও কন্তে, হোসে মরিনহো, মরিজিও সারি, মরিসিও পচেত্তিনো, সিমোনে ইনজাঘি, এরিক টেন হাগ, রাফা বেনিতেজ, দিদিয়ের দেশম, ইউসেবিও ডি ফ্রানসেস্কো, ব্রুনো জেনেসিও, জিয়ানপিয়েরে গাসপেরিনি, লুসিয়ানো স্প্যালেত্তির মতো কোচেরা দল বদল করতে যাচ্ছেন। এ কোচদের মধ্য থেকে একজনকে পছন্দ করে বার্সেলোনা যে ভালভার্দেকে ছাঁটাই করবে না, তার নিশ্চয়তা কোথায়?

মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here