তাকবিরে তাশরিক পড়ুন রোববার থেকে বৃহস্পতিবার

Avatar
নিজাম উদ্দিন, সিনিয়র রিপোর্টার
১২:৪৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৯

মহান আল্লাহ তাআলার একত্ববাদের স্বীকৃতি ও প্রশংসা ঘোষণাই হলো তাকবিরে তাশরিক। আরবি (হিজরি) বছরের শেষ মাস জিলহজের ৯ তারিখ ফজর থেকে ১৩ তারিখ আসর পর্যন্ত তাকবিরে তাশরিক পড়া ওয়াজিব।

প্রাপ্তবয়স্ক নারী-পুরুষ, মুকিম-মুসাফির, গ্রামবাসী-শহরবাসী সবার জন্য একাকি কিংবা জামাআতে নামাজ ফরজ নামাজ আদায় করার পর একবার তাকবিরে তাশরিক আদায় করা আবশ্যক করেছে ইসলাম। তাই উল্লেখিত ব্যক্তিরা প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর ওয়াজিব ভিত্তিতে একবার তাকবিরে তাশরিক পড়বেন।

তাকবিরে তাশরিক হলো-
اللَّهُ أَكْبَرُ اللَّهُ أَكْبَرُ لَا إلَهَ إلَّا اللَّهُ وَاَللَّهُ أَكْبَرُ اللَّهُ أَكْبَرُ وَلِلَّهِ الْحَمْدُ
উচ্চারণ : ‘আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, ওয়ালিল্লাহিল হামদ্।’
অর্থ : ‘আল্লাহ মহান, আল্লাহ মহান; আল্লাহ মহান, আল্লাহ ব্যতিত কোনো উপাস্য নেই; সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য, আল্লাহ মহান।’

১৪৪০ হিজরির জিলহজ মাস হিসেবে এ বছর (২০১৯) আগামী ১১ আগস্ট রোববার ফজরের নামাজ থেকে তাকবিরে তাশরিক পড়তে হবে। ১৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার আসরের নামাজের পর পড়ার মাধ্যমে তা শেষ হবে।

প্রত্যেক ওয়াক্তে তাকবিরে তাশরিক একবার পড়া ওয়াজিব আর ৩ বার পড়া মোস্তাহাব। এ ৫ দিনে মোট ২৩ ওয়াক্ত নামাজে তাকবিরে তাশরিক পড়তে হয়। এ হুকুম প্রত্যেক আরবি বছরের উল্লেখিথ ৫ দিনের জন্যই প্রযোজ্য।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে এ ২৩ ওয়াক্ত ফরজ নামাজের পর তাকবিরে তাশরিক পাঠ করে আল্লাহ তাআলার ভালোবাসার ভাগিদার হওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here