ভারতের বিপক্ষে ১-০ গোলে এগিয়ে বাংলাদেশ

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর মুখোমুখি বাংলাদেশ ও ভারতের জাতীয় ফুটবল দল। স্বভাবতই কলকাতার সল্টলেকে যুব ভারতীয় স্টেডিয়ামে এই ম্যাচকে ঘিরে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দুই দেশের ভক্ত-সমর্থকদের।

দক্ষিণ এশিয়ার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের শক্তি একসময় কাছাকাছি থাকলেও গত কয়েক বছরে অনেক এগিয়ে গেছে ভারতের ফুটবল। সেই তুলনায় বাংলাদেশ উন্নতি করতে পারেনি। তবে জেমি ডে কোচ হওয়ার পর থেকে আবারও লড়াকু বাংলাদেশকে দেখা যাচ্ছে।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচেও শুরু থেকেই জামাল ভূঁইয়াদের লড়াকু চেহারায়ই দেখা গেল। ডিফেন্ডাররা দারুণভাবে গোলমুখ আগলে রেখেছেন। গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাও বেশ কয়েকটি সেভ করেন।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটে তো ভারতের ডানদিক থেকে নেয়া শট এক হাতে বারের ওপর দিয়ে বাইরে পাঠিয়ে দেন রানা, যেটি চোখের পলকে গোল হয়ে যেতে পারতো।

র‌্যাংকিংয়ে ৮৩ ধাপ এগিয়ে থাকা ভারত দাপট দেখিয়েই খেলছিল। বাংলাদেশও সুযোগ তৈরি করেছে। সেই সুযোগেরই একটি কাজে লাগিয়ে ম্যাচের ৪১ মিনিটে সল্টলেক স্টেডিয়ামকে স্তব্ধ করে দেয় বাংলাদেশ।

অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার দুর্দান্ত এক ফ্রি কিক বক্সের মধ্যে পেয়ে মাথা ছুঁইয়ে দেন সাদ উদ্দিন। ভারতীয় গোলরক্ষক সেটি বুঝে ওঠার আগেই জড়িয়ে যায় জালে। ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। ওই ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই প্রথমার্ধ্ব শেষ করেছে জেমি ডে’র শিষ্যরা।

বাংলাদেশ একাদশ
গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা, ডিফেন্ডার : রহমত মিয়া, ইয়াসিন খান, রিয়াদুল হাসান, রায়হান হাসান, মিডফিল্ডার : জামাল ভূঁইয়া, বিপলু আহমেদ, সোহেল রানা, ফরোয়ার্ড : সাদ উদ্দিন ও নাবিব নেওয়াজ জীবন।

মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here