রাস্তা নিয়ে অর্থমন্ত্রীর অসন্তুষ্টি ভুল বোঝাবুঝি : সেতুমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার, নিজস্ব প্রতিবেদক কুমিল্লা
প্রকাশিত: ৪:৩১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯

‘রাস্তার খারাপ অবস্থার কারণে নিজ এলাকায় যেতে লজ্জা লাগে, গাড়ির গ্লাস খুলতে পারেন না’ অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের এমন অসন্তুষ্টি প্রকাশের বিষয়টি ভুল বোঝাবুঝি বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমি তার (অর্থমন্ত্রী) সাথে কথা বলেছি। এই বিষয়টা হলো ভুল বোঝাবুঝি। ওই রাস্তাটি ফোর লেন হচ্ছে। চার লেনে যে রাস্তাটি হবে সেখানে কনস্ট্রাকশন ওয়ার্কে তো ধুলাবালি হবে, এটা হলো বাস্তবতা।


সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, চার লেন যেটা হবে কনস্ট্রাকশনকালীন সেখানে ধুলাবালি তো উড়বেই। এটাই তো হলো বাস্তবতা। এ জন্য বার বার বাড়ি যাওয়ার সময় হয়তো বিরক্ত হচ্ছেন। কিন্তু ঢাকা থেকে কুমিল্লা পর্যন্ত তো তিনি ভালোভবেই যাচ্ছেন।

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত ‘মহাসড়কের লাইফ টাইম : চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘রাস্তার খারাপ অবস্থার কারণে নিজের এলাকায় যেতে লজ্জা লাগে। আমার এলাকায় যদি যান রাস্তা দেখে কান্না আসবে। মানুষ আমাকে প্রতিদিন গালি দেয়। আমি গ্লাস নামাতে পারি না। গ্লাস বন্ধ করে যাওয়ার চেষ্টা করি। তাও যেতে পারি না। এই হলো আমাদের অবস্থা।’

৩০ ডিসেম্বর বিএনপি গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করবে- এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কেন তারা গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করবে? তাহলে তারা কেন পার্লামেন্টের সদস্য হলো? নির্বাচনে তিনি (মির্জা ফখরুল ইসলাম) নির্বাচিত হয়ে পার্লামেন্টে যোগ দিলেন না কিন্তু ওই আসনে আরেকজনকে মনোনয়ন দিলেন, সেখানেও মূল ব্যক্তি তিনি। তার মানে তিনি নির্বাচনটাকে স্বীকার করে নিয়েছেন এবং ব্যক্তিগত অসুবিধার জন্য পার্লামেন্টে নির্বাচিত হয়েও থাকলেন না। কিন্তু তার দল তো এল এবং দলের লোকই ইলেকটেড হলো।

তিনি আরও বলেন, গণতান্ত্রিক নির্বাচনে অংশ নিয়ে পার্লামেন্টে তারা পারফরমেন্স করছে এবং পার্লামেন্টের ফাস্ট রোতে তাদের একজন সদস্যকে প্রথম সারিতে বসানো হয়েছে।

বাংলাদেশ/স্টাফ/রিপোর্টার