২২ দিন বরফ রাজ্যে আটকে ছিলেন টাইসন

স্টাফ রিপোর্টার, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩:১৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

চারদিকে শুধু বরফ ছাড়া আর কিছুর দেখা মিলছিল না। আলাস্কার এই বরফরাজ্য শুধু একটি মোটা চাদর গায়ে দিয়েই ২২ দিন কাটিয়ে দিলেন ৩০ বছরের এক ব্যক্তি।

টাইসন স্টিলি নামে ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কার প্রত্যন্ত এলাকায় একটি ভ্যানেই দিন কাটান। এ সময় তার সঙ্গী ছিল পোষা একটি কুকুর। খাবার ছিল শুধু পিনাট বাটার আর আনারস। বরফে তার লেখা এসওএস দেখে উদ্ধারকারী হেলিকপ্টার পৌঁছে যায় সেখানে।টাইমস ও ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছে, টাইসনের থাকার কেবিনটি আগুনে পুড়ে গেলে আশ্রয়হীন হয়ে পড়েন। আর তুষারের কারণে অত্যধিক ঠাণ্ডায় কাহিল হয়ে পড়েন। ওই আগুনে পুড়ে মারা যায় ৬ বছরের পোষা কুকুরটিও।


টাইসন স্টিলি থাকতেন আলাস্কার স্কোয়েৎনা শহর থেকে ২০ মাইল দূরে প্রত্যন্ত এক জঙ্গলে। চারদিকে শুধু বনভূমি আর বরফ। একদিন রাতে আকস্মিক আগুনে কেবিন ঘরটি পুড়ে যায়। সেই সঙ্গে খাবার, বন্দুকের গুলি ও জ্বালানি তেল।

টাইসন নিজে প্রাণে রক্ষা পেলেও পুড়ে মারা যায় তার একমাত্র সঙ্গী পোষা কুকুর। টাইসন স্টিলি বলেন, উটাহ অঙ্গরাজ্য থেকে তিনি আলাস্কায় আসার পর দোষেই কেবিনে আগুন লাগে। ঘর গরম করার উডওভেনে কার্ডবোর্ড দিয়ে ফেলায় আগুন ধরে যায়। অনেক চেষ্টা করে আগুন নেভাতে পারেননি। এ সময় স্লিপিং ব্যাগ, মোটা কম্বল আর কিছু খাবার সঙ্গে নেন তিনি। কেবিন পুড়ে গেলে খোলা আকাশের নিচেই বরফ আর ঠাণ্ডার মধ্যেই তার দিন কাটতে থাকে। এভাবে কেটে যায় ২২ দিন।

ঠাণ্ডার হাত থেকে কতদিন এভাবে বেঁচে থাকবেন— এ আশঙ্কায় বরফের ওপর বড় করে লেখেন এসওএস। কেউ সেই লেখা দেখলে তাকে যেন উদ্ধার করেন। গত মঙ্গলবার আলাস্কা সরকারের হেলিকপ্টার এলাকা পরিদর্শনের অংশ হিসেবে আকাশে ওড়ে। কপাল ভালো টাইসনের। নজরদারি হেলিকপ্টার কেউ কোথায় বিপদে পড়লে তাদের উদ্ধার করে। সেই দলের নজরে পড়ে টাইসন স্টিলির বরফের মাঝে ইংরেজিতে সেই লেখা।

আর বরফের ওপর কাঠি দিয়ে বড় করে এসওএস লিখলেন। টাইসন লেখার মধ্য ছড়িয়ে দেন পোড়া কেবিনের ছাই, যাতে সাদা বরফের ওপর লেখা স্পষ্ট দেখা যায়। উদ্ধারকারীদের একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, বরফের মাঝে এক ব্যক্তি হাত নাড়িয়ে যাচ্ছেন। আর মুখে কি যেন বলছেন।

উদ্ধারকারী দল জানায়, এমন একটি জায়গায় টাইসন স্টিলি আটকে পড়েছিলেন, সেখানে সড়কপথের কোনো চিহ্ন নেই। উদ্ধারের পর ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, এতদিন শুধু পিনাট বাটার আর আনারস খেয়ে বেঁচেছিলেন তিনি।

বাংলাদেশ/স্টাফ/রিপোর্টার