তেহরানে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের কুশপুত্তলিকা দাহ

স্টাফ রিপোর্টার, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১:১৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২০

ইরানের আইনের প্রতি সম্মান দেখাতে পারেননি বলে অভিযোগ করে তেহরানে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত রব ম্যাকিয়ারের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছেন ইরানি বিক্ষোভকারীরা।

মঙ্গলবার তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ে ওই কূটনীতিকের অবয়বে একটি কার্ডবোর্ড কেটে সেটি পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। সঙ্গে বৃটিশ পতাকাও জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। এর আগে গত শনিবার তাকে তিন ঘণ্টা আটক করে রেখেছিলেন ইরানি কর্তৃপক্ষ। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রব যেটাকে অবৈধ বলে আখ্যায়িত করেছেন। যদিও এই কূটনীতিক বলছেন, তিনি এমন একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন, যেটা ওই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণে করা হয়েছিল বলে প্রচার করা হয়েছে। এতে তিনি মাত্র পাঁচ মিনিট উপস্থিত ছিলেন। ওই বিমান দুর্ঘটনায় চার ব্রিটিশ নাগরিকও নিহত হয়েছেন।


এএফপির সাংবাদিক বলেন, মঙ্গলবার তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ে মুখোশপরা দুই শতাধিক শিক্ষার্থী জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখান। কালো চাদরপরা নারীরা এসময় ‘ব্রিটেন নিপাত যাক’ বলে স্লোগান দেন।

এদিকে ম্যাকেয়ারকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তাকে বহিষ্কারের আহ্বান জানিয়েছেন ইরানি বিচার বিভাগের মুখপাত্র। চলতি মাসের শুরুতে ভুলবশত ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রে একটি ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় বিক্ষোভে অংশ নেয়ার পর শনিবার তাকে গ্রেফতার করে পরে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উসকানি দেয়ার অভিযোগ করেছেন ইরানি বিচার বিভাগের মুখপাত্র গোলাম হোসেইন ইসমাইলি। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক আইনের অধীন এমন ব্যক্তিরা অবাঞ্ছিত বা পারসোনা নন গ্রাটা।

‘কাজেই তাকে বহিষ্কার করা হবে বলেই আশা করছেন ইরানি জনগণ এবং সেটা আন্তর্জাতিক আইনের অধীনেই,’ বললেন ইসমাইলি।

বাংলাদেশ/স্টাফ/রিপোর্টার