জবিতে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পেছানোর দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

জবি প্রতিনিধি, নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকা
প্রকাশিত: ৭:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৬, ২০২০

আগামী ৩০ শে জানুয়ারি শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজার পঞ্চমী তিথিতে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবিতে মানববন্ধন করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ পেছানোর জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি জোর দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) ‘সচেতন শিক্ষার্থীবৃন্দ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়’ ব্যানারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্ত চত্বরে এই মানববন্ধন করে তারা।

ই মানববন্ধনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী পিয়াল অনুপ বলেন,হিন্দু ধর্মে সরস্বতী পুজা একটি বিশেষ দিন শিক্ষার্থীদের কাছে, বাঙালীদের কাছে। সেদিন ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন দেয়া অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে নির্বাচন কমিশন। আমরা আশা করি অনতিবিলম্বে দুই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করে বাংলাদেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে প্রমাণিত করবে নির্বাচন কমিশন।


অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মিথুন রায় বলেন, সাধারণত সরস্বতি পূজা সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আয়োজন করা হয়। আবার ৩০ জানুয়ারির ভোট কেন্দ্র ও নির্ধারিত হবে শহরের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ অবস্থায় আমরা কীভাবে পূজা উদযাপন করবো সেটা নিয়েই অনিশ্চিয়তা সৃষ্টি হয়েছে। এজন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহবান যেন তারিখ পরিবর্তন করা হয়।

ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী অমিত সরকার বলেন, ভোট দেওয়া আমাদের অধিকার। একই সাথে পূজা পালন করা আমাদের ধর্মাবলম্বীর জন্য একান্ত কর্তব্য। এখন নির্বাচন ও পূজা একসাথে হলে আমরা পূজা পালন করবো নাকি ভোট প্রয়োগ করব।

ফিন্যান্স বিভাগের শিক্ষার্থী অরুপ গোপ বলেন, আমাদের পূজা তিথি অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। চাইলে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করা যায় কিন্তু পূজার সময়সূচি পরিবর্তন করা যায় না। তিথি অনুযায়ী ই আমাদের পূজা উদযাপন করতে হয়। আমরা আশা করি নির্বাচন কমিশন ভোটের তারিখ পিছিয়ে আমাদের পূজা ও ভোটাধিকার প্রয়োগের সুষ্ঠু ব্যবস্থা করবে।

বাংলাদেশ/জবি/প্রতিনিধি