জবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কর্মীদের হাতাহাতি-মারধর

স্টাফ রিপোর্টার, নিজস্ব প্রতিবেদক ঢাকা
প্রকাশিত: ১:০৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ১, ২০২০

প্রটোকল দেয়াকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে হাতাহাতি ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক কর্মীকে গুরুতর অবস্থায় মিটফোর্ড হাসপাতালে নেয়া হয়।

শনিবার আনুমানিক রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুল ফটকে এ ঘটনার সুত্রপাত হয়।


জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক নজিবুল্লাহ হিরু ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপনকে সংবর্ধনার অনুষ্ঠানে প্রটোকল দেয়ার সময় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেনের কর্মী মিনুন মাহফুজের সাথে ধাক্কা লাগে আরেক সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাকিলের।

এরপর মিনুন মাহফুজ ও তার বন্ধু সজীব বৈদ্য ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে গেলে লক্ষ্মীবাজার সেন্ট গ্রেগরি স্কুলের সামনে থেকে তার উপর পেছন থেকে অতর্কিত হামলা চালায় সৈয়দ শাকিল এর গ্রুপের ৮ থেকে ১০ জন কর্মী।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে­ জানা যায়, আহত মিনুন মাহফুজকে উদ্ধার করে ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সৈয়দ শাকিলের কর্মীরা সেখানে গিয়ে তাকে হুমকি দেয় এবং মামলা বা অভিযোগ না দেওয়ার জন্য বলেন। এরপর তাকে সেখান থেকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

আহত মিনুন মাহফুজ বলেন, রিপন ভাইকে প্রটোকল দেওয়া নিয়ে ঝামেলার সূত্রপাত হয় এবং এর জের ধরে গ্রেগরি স্কুলের সামনে থেকে পেছন থেকে হামলা চালায় সৈয়দ শাকিল এর গ্রুপের ৮ থেকে ১০ জন কর্মী।

মারধরের বিষয়ে আক্তার হোসেন ও সৈয়দ শাকিলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, এরকম কিছুই হয় নি, প্রটোকল দেওয়ার সময় ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটলেও এটি নিয়ে কোন মারামারি হয় নি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, দুই গ্রুপের মারামারির বিষয়টি আমরাও শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ আসেনি। আসলে দোষিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ/স্টাফ/রিপোর্টার